সারাদেশ

উন্মুক্ত নকলের উৎসবে শেষ হলো মহিমাগঞ্জে জে এস সি,জে ডে সি পরীক্ষা

সংবাদ আজকাল ,ডেক্স : শেষ হলো জে এস সি,জে ডে সি পরীক্ষা দুঃখ জনক হলেও সত্যি পরীক্ষার শেষ দিনে নকলের অভিযোগ উঠেছে। কেন্দ্র পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা শিক্ষকদের ম্যানেজ করে তাদের সামনেই জানালা দিয়ে নকল ছুঁড়িয়ে দিচ্ছে জানালা দিয়ে ,আবার কেউ বা দেয়াল টপকিয়ে । গত বৃহস্পতিবার মহিমাগঞ্জ হাইস্কুল পরীক্ষা কেন্দ্রে এমন চিত্র দেখা গেছে।

এমনভাবে নকল দেওয়ার দৃশ্য দেখে যে কেউ দ্বিধাহীন বলতে পারেন, শিক্ষকদের সাথে পরীক্ষার্থীদের মনে হয় পূর্ব থেকে এমনটাই চুক্তি ছিল। নকল বন্ধে শিক্ষকদের তেমন কোনো তৎপরতা দেখা যায়নি।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক অভিভাবক বলেন, পরীক্ষার হলে একটু বাড়তি সুযোগ-সুবিধা নেওয়ার জন্য প্রত্যেক স্কুলের স্যার দের কাছেই প্রাইভেট পড়েন শিক্ষাথীরা।পরীক্ষার সময় কিছু কিছু স্যাররা অনেক ছাত্র ছাত্রীদের বিভিন্ন ভাবে সহযোগীতা করে থাকেন। স্যার রা রুমে থাকা কালীন বাহির থেকে দেয়াল টপকিয়ে
এসে নকল দিয়ে যায়।এ রকম অনেক অভিযোগ আছে বলে তিনি দাবি করেন।

এতে করে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা নকলের কবলে পড়ে পরীক্ষার সময়ও তেমন পড়া লেখা করেননা বলে অভিযোগ অভিভাবকদের। ফলে শিক্ষার্থীরা হয়ে পড়ছেন মেধা শুন্য , অন্যদিকে যে স্কুল নকলে পারদর্শী ওই সব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা থাকে ভালোই।প্রতিবারই কেন্দ্রটিতে উঠে নকলরের অভিযোগ। ডিউটিরত শিক্ষকরা এ নকলের মুল হোতা।

মহিমাগঞ্জ সচেতন মহলের দাবি দিন দিন এই রকম হইলে শিক্ষা ব্যবস্থা হুমকির মুখে পরবে।আগামী দিনে সামনের এস এস সি পরীক্ষা যাতে এই রকম উৎসব মুখর পরিবেশে নকল দিতে না পারে উপজেলা প্রশাসন কে বিশেষ ভাবে নজর রাখতে অনুরোধ জানানো হয়।

Related Articles

Back to top button
Close