সারাদেশ

খানসামায় পুকুর খুঁড়তে গিয়ে বেড়িয়ে এলো টাকার কলস

দিনাজপুরের খানসামায় পুকুর খোঁড়ার সময় টাকায় ভর্তি কলস পেল খননকারীরা। কলসটি মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার গোয়ালডিহি ইউনিয়নের ধনেশাহপাড়ার আব্দুস সামাদের জমিতে পাওয়া গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত কয়েক দিন ধরে আব্দুস সামাদের একটি জমিতে নতুন পুকুর খননের কাজ চলছে। খননকৃত ওই পুকুরের মাটি পার্শ্ববর্তী কুমড়িয়া গ্রামের সাইফার রহমানের ইটভাটায় নেয়া হচ্ছে। প্রতিদিনে মত মাটি কাটার সময় এক কর্মীর কোদালের আঘাতে মাটির কলসটি ভেঙে প্রাচীনকালের আরবি বর্ণ খচিত রূপার টাকার কয়েন বেড়িয়ে ছিটকে পড়লে কর্মরত সকলের নজরে আসে। এ সময় প্রত্যক্ষদর্শী ও কাজে নিয়োজিত কর্মীরা ওই টাকার কয়েন কুড়াতে থাকে। পরে সন্ধ্যায় খবর ছড়িয়ে পড়ে এবং দলে দলে লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। প্রত্যদর্শীদের দেয়া তথ্য মতে প্রাপ্ত টাকার পরিমাণ প্রায় দেড় কেজির মত। ৪টি কয়েন পরিমাপ করে প্রতিটি কয়েন সাড়ে ১২ গ্রাম ওজন হারে দেড় কেজিতে প্রায় ১২০টি কয়েন মত হতে পারে ধারণা করা হচ্ছে। নাম প্রাকশে অনেচ্ছুক একজন খনন কর্মী জানান, কলসে পাওয়া ওইসব টাকা তাদের সর্দার আব্দুল গণির কাছে জমা রয়েছে। এ ব্যাপারে ভাটায় দায়িত্বরত মাটি কাটার সর্দার আব্দলু গণির সাথে যোগাযোগ না হওয়ায় ভাটার মালিক সাইফার রহমানের সাথে কথা হলে তিনি রূপার কয়েন প্রাপ্তির কথা স্বীকার বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি। তবে, কয়েনগুলো নাকি এলাকাবাসী ভাগ বাটোয়ারা করে নিয়েছে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাজেবুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি, বলে মাটির নিচে প্রাপ্ত সম্পদের মালিক সরকার। এগুলো কোন ক্রমেই ভাগ করে নেয়া যাবে না।

Related Articles

Back to top button
Close