সারাদেশ

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীর উপর অমানবিক অত্যাচারের অভিযোগ জেলা যুবদলের সহসভাপতির বিরুদ্ধে

শাহ আলম সরকার কালিয়াকৈরঃ
গাজীপুরের কালিয়াকৈরে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীর উপর অমানবিক অত্যাচারের অভিযোগ উঠেছে জেলা যুবদলের সহসভাপতির বিরুদ্ধে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, প্রায় তিন বছর আগে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় উপজেলার ফুলবাড়িয়া উত্তর পাড়া এলাকার মৃত মোশাররফ মিয়ার মেয়ে উম্মে মুসলিমা মুক্তার (৩৩) সাথে জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি,  উপজেলার মোথাপাড়া এলাকার শেখ সাব্বির আহম্মেদ কছিম (৪২) এর। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই পিতৃহারা ওই অসহায় গৃহবধূ মুক্তার উপর যৌতুকের দাবিতে অমানবিক অত্যাচার শুরু করে পাষন্ড স্বামী কছিম।
একদিকে স্ত্রীর অসহায়ত্বের সুযোগ অপরদিকে স্বামীর রাজনৈতিক পাওয়ার। দুইয়ে মিলে স্ত্রীর উপর নির্যাতনের মাত্রা বেড়েই চলছিল। মেয়েকে সুখী দেখতে মুক্তার মা সর্বস্ব বিক্রি করে জামাতাকে ২০ লাখ টাকা দেয়। তারপরও ক্ষান্ত হয়নি কছিম। আরো যৌতুকের দাবিতে ভরনপোষণ বন্ধ করে দেয়। উপায় না পেয়ে টিভি ফ্রিজের দোকান দিয়ে নিজের খরচ চালাতে থাকে মুক্তা। বুধবার সকালে কছিম তার আরো দুভাই শেখ কামরুজ্জামান (২৬), কমুর উদ্দিন (৪৬) ও বোন মোমেনা (২৮) কে নিয়ে মুক্তার কাছে আরও ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে।
দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সবাই মিলে মুক্তাকে বেধম মারধর করে। স্থানীয় লোকজন তাকে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, যৌতুকের দাবিতে কছিম ১ম স্ত্রীর উপর অমানবিক নির্যাতন করায় সে তাকে ডিভোর্স দিতে বাধ্য হয়।

Related Articles

Back to top button
Close