সারাদেশ

ছাত্রকে শারিরীক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষকের সাত দিনের জেল

ময়মনসিংহের নান্দাইলে কওমি মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীকে শারিরীক নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষককে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জানা যায়, নান্দাইল পৌরসদরের বালিয়াপাড়া মহল্লার আমেনা মফিজ নুরুল কুরআন নূরানি ও হাফিজিয়া মাদ্রাসার নূরানি বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেন (১১)কে পড়া না পাড়ার কারণে বাঁশের তৈরি বেত দিয়ে শারিরীক নির্যাতন চালায় অত্র মাদ্রাসার শিক্ষক শফিকুল ইসলাম (৪৫)।
সাব্বির পৌরসদরের কাটলিপাড়া গ্রামের জুয়েল মিয়ার পুত্র।

জুয়েল মিয়া জানান, ১০ মার্চ সকালে পড়া ভুল হওয়ার কারণে উক্ত শিক্ষক আমার ছেলেকে মারপিট করে। খবর পেয়ে আমি মাদ্রাসায় গিয়ে ছেলের শরিরে মাথা থেকে পা পর্যন্ত লালচে ফোলা দাগ দেখতে পায়ে ইউএনও স্যারকে জানাই।
এবিষয়ে নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এরশাদ উদ্দীন জানান, শিক্ষক শিশুটিকে শারিরীক ভাবে নির্মম নির্যাতন করেছে।আমি তাকে বেত সহ আটক করেছি। যা কোন দিনেই কাম্য নয়। তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার রোকনউদ্দীন আহামেদ, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আলী ছিদ্দিক।

Related Articles

Back to top button
Close