সারাদেশ

জমে উঠেছে বগুড়ার ধুনটের কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের উপ-নির্বাচন

রায়হানুল ইসলাম , বগুড়া জেলা প্রতিনিধি : আসছে ২০ অক্টোবর বগুড়া ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে জোর প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে পুরো কালেরপাড়া ইউনিয়ন। পাড়া-মহল্লায় চায়ের আড্ডায় চলছে প্রার্থীদের যোগ্যতার চুলচেরা বিশ্লেষণ।

তর্ক-বির্তক থাকলেও ভোটের আমেজ লক্ষ করা গেছে ভোটারদের মাঝে। তবে ‘নির্বিঘ্নে আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব’ এমন পরিবেশ সৃষ্টি করতে নির্বাচন অফিসারের প্রতি সাধারন ভোটার ও প্রার্থীরা দাবি করেছেন।

জানা গেছে গত ১৪ ফ্রেবুয়ারী অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম ফটিক মাস্টার মৃত্যু বরণ করলে চেয়ারম্যান পদ শুন্য হওয়ায় আসছে ২০ অক্টোবর নির্বাচন করার লক্ষে তফশিল ঘোষণা করা হয়।

ধুনট উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো: মোকাদ্দেছ আলী জানান, ২১ হাজার ১৩ জন ভোটারের জন্য ৯টি কেন্দ্রে মোট ৫৯টি বুথে ভোট গ্রহনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এখানে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১০ হাজার ৩শত ৩৫জন আর নারী ভোটার রয়েছে ১০ হাজার ৬শত ৭৮জন। মোট ৪জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্বদীতা করছেন।

এদের মধ্যে নৌকা প্রতীকে হারেজ উদ্দীন আকন্দ হারেজ, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সাজ্জাদ হোসেন শিপন, আনারস প্রতীকে লিটন আহমেদ ও ঘোড়া প্রতীকে লড়ছেন তারিকুল ইসলাম তারিক। তবে এ নির্বাচনে বিএনপি ও জামায়াতের কোন প্রার্থী অংশ গ্রহণ করেননি।

তিনি আরও জানান, ভোটাররা যেন নিবিঘ্নে ভোট দিতে পারে এজন্য তিন জন্য এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট তফশিল ঘোষণার পর থেকেই নির্বাচনী পরিবেশ ঠিক রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন। একই সাথে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে নির্বিঘ্নে যার ভোট যাকে খুশি তাকে দিতে পারবে।

এদিকে মোটরসাইকেল প্রতীকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সাজ্জাদ হোসেন শিপন দাবি করেছেন, ‘ নির্বিঘ্নে আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব’ এই পরিবেশ থাকলে আশা করি সকল ভোটার আনন্দঘন পরিবেশে ভোট ক্ন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদান করতে পারবে। আর তা করতে পারলেই আমার বিজয় নিশ্চিত বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, এই এলাকার রাস্তাঘাটের বেহাল দশা, দরিদ্র্য মানুষ যেন কোন হয়রানির শিকার না হয়ে তাদের ন্যার্য অধিকারটুকু পায় এই লক্ষ্যে তিনি কাজ করে যাবেন। অপরদিকে কালের পাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ইসলামপুর ঈশ্বঘাট দাখিল মাদ্রাসা, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাঠের সভাপতি আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হারেজ উদ্দীন আকন্দ হারেজ জানান, বারবার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি (ইউপি সদস্য) হিসেবে সাধারন মানুষের সাথে থাকার কারনে চেয়ারম্যানপদে তাকে মানুষ বিপুল ভোটে বিজয়ী করবেন।

মানুষের উন্নয়নে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের ছোবল থেকে এই ইউনিয়নকে রক্ষাকর্তা হিসেবে তিনি কাজ করতে চান যে কারণে তিনি চেয়ারম্যানপদে নির্বাচনের জন্য জনগনের প্রতি আহবান জানান। এলাকার সাধারন ভোটার এই উপ-নির্বাচনকে গুরুত্বসহকারে দেখছেন।

তারা যোগ্য প্রার্থীকেই ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করবেন বলে জানিয়েছেন। যে এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা বজায়সহ উন্নয়নে, মানবতায় ও সেবাদানে একনিষ্ট হবেন তাকেই তারা নির্বাচিত করবেন। ২০ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে বলে নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে।

Related Articles

Back to top button
Close