জাতীয়

দরিদ্রতম ২০টি উপজেলায় বেকারদের প্রশিক্ষণ

 

ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি সম্প্রসারণ প্রস্তাব অনুমোদন করেছেন মন্ত্রিসভা। এর ফলে দেশের দরিদ্রতম ২০টি উপজেলার ৩০ হাজার বেকার নারী-পুরুষ প্রশিক্ষণ শেষে চাকরি পাবে।
সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়।
বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূঁইয়া এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
তিনি বলেন, ২০১০ সালে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচিটি গ্রহণ করা হয়েছিল। এ কর্মসূচির আওতায় বেকার নারী-পুরুষদের তিন মাসের প্রশিক্ষণ দিয়ে তারপর দু’বছরের জন্য সরকারি-আধা সরকারি অফিসে নিয়েগে দেয়া হয়। প্রশিক্ষণ অবস্থায় প্রতিদিন ১০০ টাকা ও চাকরিরত অবস্থায় প্রতিদিন ২০০ টাকা দেয়া হয়।
তিনি জানান, নতুন অনুমোদনে বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতায় কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে এসএসসি পাসকৃত ১৮ থেকে ৩৫ বছরের বেকার নারী-পুরুষ প্রশিক্ষণে অংশ নিতে পারত। এবার এইচএসসি পাসকৃত ২৪ থেকে ৩৫ বছরের বেকাররা অংশ নিতে পারবেন।
এ কর্মসূচির আওতায় প্রথমে ৩ জেলা কুড়িগ্রাম বরগুনা ও গোপালগঞ্জকে অন্তুর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এরপর রংপুর বিভাগের ৮টা উপজেলা অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তার পর ১৭টি জেলার ১৭টি উপজেলা অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
এ আইনের ব্যাখায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগামী ১৫-১৬ অর্থবছরে সবচেয়ে দরিদ্রতম ২০টি উপজেলাকে বাছাই করে এ কর্মসূচির অন্তর্ভুক্ত করা হবে। এর আওতায় প্রায় ৩০ হাজার বেকার প্রশিক্ষণ নেবে এবং পরবর্তী ২ বছর তারা চাকরি পাবে।
এদিকে মন্ত্রণালয় ও বিভাগসমূহের ১৪-১৫ অর্থবছরের কার্যাবলী সম্পর্কিত বার্ষিক প্রতিবেদন অনুমোদন করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close