বগুড়ার-সংবাদ

বগুড়ার নামাজগড় আঞ্জুমান-ই-গোরস্থান পরিচালনা কমিটির ফলক উন্মোচন

(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)নবগুড়ার নামাজগড় আঞ্জুমান-ই-গোরস্থান পরিচালনা কমিটির ফলক উন্মোচন করা হয়েছে। কমিটির সভাপতি রাকসুর সাবেক ভিপি মো: হায়দার আলী শনিবার বিকালে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলকটি উন্মোচন করেছেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যেনউপস্থিত ছিলেন, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম নয়ন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুর রহমান, সহ-সভাপতি মাছুদার রহমান হেলাল ও ইকবাল হোসেন খান রতন, কোষাধ্যক্ষ আবদুর রহিম বগ্রা, অফিস সম্পাদক মাওলানা নজরুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য আজিজার রহমান বাবু, মাফুজার রহমানর মাফু, তোফাজ্জল হোসেন তোফা, জামিনুর রহমান রঞ্জু, ছামছু মন্ডল, পারভেজ হোসেন উজ্জ্বল, সাজ্জাদ হোসেন রাখা, সাইরুল ইসলাম, রাশেদুল ইসলাম, আল্লামা মেহেদী হাসান মিটার, গোলাম আজম টিকুল, আমিনুল ফরিদ, নাজমুল হুদা নাসিম, প্রকৌশলী হাসিবুল হাসান ঝুনু, খলিলুর রহমান, তোফায়েল আহমেদ বিপ্লব, ডা. ফজলুল হক সৌরভ, মোস্তাফিজার রহমান বাবুল প্রমুখ ।

ফলক উন্মোচন শেষে মাওলানা নজরুল ইসলাম দোয়া পরিচালনা করেন। দোয়ায় সকল মৃত ব্যক্তির আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

পরে হায়দার আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম নয়ন ও কোষাধ্যক্ষ আবদুর রহিম বগ্রা।

সভাপতির বক্তব্যে হায়দার আলী কমিটির সাবেক সদস্য মরহুম মোবারক উল্লাহ, তবিবর রহমান, আজিজুল হক বাবলু, সামছুল হক খোকন ও সাইফুল ইসলাম শেফুলের অবদানকে স্মরণ করে বলেন, বর্তমান কমিটির সহযোগিতায় গোরস্থানে চৌহদ্দি নির্ধারণ করে সুদৃশ্য গ্রীল সম্বলিত ইটের বাউন্ডারি, আটটি গেট, মাটিভরাট, রাস্তা নির্মাণ ও পাকাকরণ, পরিকল্পিত বিদ্যুতায়ন, সৌন্দর্যবর্ধক বৃক্ষরোপন, পুকুর খনন ও শানবাধাই ঘাট, গম্বুজ নির্মাণ এবং গোরস্থানের উন্নয়নে সাড়ে চার হাজার বর্গফুট আয়তনের আটতলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করে ছয়তলা ভবন নির্মাণের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

তিনি এ কাজে যারা মেধা, শ্রম ও অর্থ দিয়ে সহযোগিতাকারীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এছাড়া অবশিষ্ট কাজ শেষ করতে সমাজের সকল পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

Related Articles

Back to top button
Close