বগুড়ার-সংবাদমহাস্থান

বগুড়ার মহিষবাথানে অন্যের জমি দখল করে ক্লাব ঘর নির্মাণ

মহাস্থান (বগুড়া) প্রতিনিধি বগুড়ার শেখোরকোলা ইউনিয়নের মহিষবাতান গ্রামে রাস্তার পাশে অন্যের জমি দখল করে ক্লাব ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে রাতভর সে ক্লাবঘরে মাদকের আসর বসছে। অনিরাপদভাবে সংযোগ নেয়া বৈদ্যুতিক তারের সাথে স্পর্শে প্রায়ই স্থানীয়রা বিদ্যুতায়িত হচ্ছে। বিদ্যুতের তার পুকুরের মধ্যে দিয়ে যাওয়ার কারণে পুকুরের পানিও থাকছে বিদ্যুতায়িত হয়ে। স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা ক্লাব ঘর বন্ধ ও বৈদ্যুতিক তার সরিয়ে নিতে বললে ক্লাব কর্মকর্তরা তাদের হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনায় ক্লাবটি বিষয়ে ব্যবস্থাগ্রহণে বগুড়া সদর থানা পুলিশ ও শেখোরকোলা ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, বগুড়া সদর থানায় মহিষবাথান গ্রামের জিল্লার রহমান একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগে বলা হয়েছে, তার পৈতৃক সম্পতি দখল করে স্থানীয় মিলন মিয়া, আল আমিন, শামীম মিয়া, বুদা মিয়াসহ বেশ কয়েকজন যুবক জোরাবাগান নামে একটি ক্লাব ঘর নির্মাণ করে। দিনে এই ক্লাবঘরে তেমন কাউকে দেখা না গেলেও রাতে অসামাজিক কর্মে সরব হয়ে উঠে। এই ক্লাবঘরে রাতভর বিভিন্ন এলাকা থেকে তরুণ যুবক এসে মাদক সেবন করে। ক্লাব ঘরের জন্য অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ নেওয়া হয়েছে। সেই বিদ্যুৎ সংযোগ নিরাপদ না থাকায় শিশু, বৃদ্ধসহ বেশ কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা বিদ্যুৎ শক পেয়েছে। পুকুরে পানির সাথে তার লেগে থাকায় পুকুরের জলজ প্রাণী মরে যাচ্ছে। পুকুরে কেউ ভয়ে নামতে পারছে না। এসবঘটনার প্রতিবাদ করলে ক্লাবকর্মকর্তারা স্থানীয়দের হুমকি দিচ্ছে। ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না।

বগুড়া সদর থানা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আসলাম আলী জানান, একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের তদন্ত চলছে। এ বিষয়ে যত দ্রæত সম্ভব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

Related Articles

Back to top button
Close