বগুড়ার-সংবাদমহাস্থান

বগুড়া সদরের গোকুলে মাদক বিক্রেতারা বেপরোয়া অবিলম্বে এদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ দাবী

মহাস্থান (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়া সদরের গোকুল ইউনিয়নের বেশ কিছু গ্রাম গঞ্জ ও বন্দরে মরণ নেশার থাবা বশিয়েছে গডফাদারুপি কিছু বেপরোয়া মাদক বিক্রেতা। ফলে দেশের ভবিষ্যত কান্ডারী সোনার ছেলেরা ধ্বংশের দ্বারপ্রান্তে পৌছে যাচ্ছে। জরুরী ভিত্তিকে এসব মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন এলাকাবাসী। জানা যায়, বুগড়া সদরের গোকুল ইউনিয়নের অধিকাংশ মানুষ সচেতন। এর মধ্যে বিশেষ করে গোকুল উত্তরপাড়া ছ’মিল বন্দর, ধাওয়াকোলা ও গোকুল স্কুল বন্দর এলাকার মানুষ সবচেয়ে বেশি সচেতন। এই সব এলাকায় বিগত বছর গুলোতে মাদকমুক্ত রেখেছিলো সচেতন এলাকাবাসী। দু:খের বিষয় হলেও সত্য যে, বছর খানেক হলো লক্ষ করা যুাচ্ছে ইউনিয়নের অধিকাংশ পাড়া মহল­া, বন্দরে মাদকের বিস্তার লাভ করেছে। গোকুল উত্তরপাড়া , বোরহান Íালী মাজার এলাকা, পলাশবাড়ী, ধাওয়াকোলা, বেহুলার বাসরঘর ও গ্যারেজ সহ বিভিন্ন পাথারের ডেরায় মাদকের বেচা কেনা ও সেবন করছে উঠতি বয়সের যুব সমাজ। হিরোইন, ফেন্সিডিল, গাঁজা জাতীয় নেশার সাথে যুক্ত হয়েছে বাবা ও ইয়াবা। এই সব মাদক বিক্রেতারা যুব সমাজকে ধ্বংস করে তারা নিজেরা রিতিমতো লক্ষ লক্ষ টাকার মালিক বনে যাচ্ছে। জরুরী ভিত্তিতে এই সব মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেতন এলাকাবাসী। ইতিমধ্যে বাবা, ইয়াবাও হেরোইন বিক্রেতাদের নামের তালিকা সংগ্রহ করতে শুরু করেছেন এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। মরণ নেশা বিক্রেতাদারে তালিকা প্রশাসন সহ মন্ত্রনালয়ে জরুরী ভিত্তিতে াঠাবেন বলে গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা গেছে। তার পরও যদি কঠোর ব্যবস্থা না নেয়া হয়, তা হলে সচেতন মহল বড় ধরনের ব্যবস্থা ি নিতে পারে বলে আশংখা করা হচ্ছে। সোনার বাংরাকে ভবিষ্যতে যারা নেতৃত্ব দেবে সেই সব সোনার ছেলেদের ধ্বংশ কারীদের কোনক্রমেই এই রাষ্ট্র প্রধানের কর্তা ব্যক্তিরা ক্ষমা করবেন না বলে সচেতন মানুষের বিশ্বাস। তাই অবিলম্বে চিহ্নি মাদক বিক্রেতাদের গ্রেফতার করে ই সমাজ ও জাতিকে রক্ষা করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন সচেতন গোকুল বাসী।

Related Articles

Back to top button
Close