সারাদেশ

বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলায় ১৮মাস ধরে আটক করে রেখেছে -মির্জা ফখরুল

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি \ বর্তমান সরকার কথায় কথায় বলে আসছে, দেশে উন্নয়নের লহরী চলছে। যে দেশের ৮০ ভাগ কৃষক তার পণ্যের দাম পায়না সেখানে কিভাবে উন্নয়ন সম্ভব। আজকে কৃত্তিমভাবে জিডিপির গ্রোথ দেখিয়ে এই উন্নয়নকে উন্নয়ন বলা যাবেনা। এই উন্নয়ন আতœহনকারী উন্নয়ন দাবী করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ২৮ অক্টোবর সোমবার দুপরে ঠাকুরগাঁও পৌর মিলনায়তনে জেলা কৃষকদলের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, যে উন্নয়ন মানুষকে ঋণগ্রস্থ করবে, পর-নির্ভরশীল করবে, ভবিষ্যৎ রুদ্ধ করে দিবে সে উন্নয়ন উন্নয়ন হতে পারেনা। অথচ সরকার বাংলাদেশকে সিঙ্গাপুর বানানোর প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে। তিনি সিঙ্গাপুরের প্রকৃত অবস্থা তুলে ধরে বলেন, সিঙ্গাপুর ছোট্ট একটি বন্দর নগরী। সেখানে কোন কৃষি কাজ হয়না। সেখানে কোন ফসল ফলেনা। তারা সব কিছুই বাইরে থেকে আমদানি করে। সেখানে শুধু বড় বড় রাস্তা, অভার ব্রিজ ও রঙ্গিন ক্যাসিনো আছে।

সরকার এদেশের কৃষকদের পণ্যের নায্য মূল্য না দিয়ে বাংলাদেশকে ক্যাসিনের শহর বানাতে চায়। ফখরুল আরো বলেন, আজকে আদালতে গেলে আমার প্রতি সুবিচার করা হবেনা। কারণ বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলায় ১৮মাস ধরে আটক করে রেখেছে। তাকে জামিন না দিয়ে তার মৌলিক অধিকার খর্ব করা হচ্ছে।

ফখরুল বর্তমান সরকারের চলমান শুদ্ধি অভিযানের সমালোচনা করে বলেন, কিসের শুদ্ধি অভিযান ! এটা তাদের নিজেদের শুদ্ধি। তিনি সরকারকে প্রশ্ন করে বলেন,তাহলে আপনারা স্বীকার করছেন যে আপনারা শুদ্ধ নন ? কাঁদা ও গøানীতে আপনারা ভরে গেছেন। শুদ্ধি অভিযানের নামে চুনি পুটিদের গ্রেফতারের পাশাপাশি যাদের নির্দেশে এসব দুর্নীতি লাগামহীন অবস্থায় পৌঁছেছে তাদের গ্রেফতারের দাবী জানান।

জেলা কৃষকদের সভাপতি আনোয়ারুল হকের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিতছিলেন, জাতীয়তাবাদী কৃষকদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব হাসান জাফির তুহিন, জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমিন সহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির
নেতৃবৃন্দ।

Related Articles

Back to top button
Close