সারাদেশ

মহিমাগঞ্জে আন্ত:নগর ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবীতে মানব বন্ধন

মহিমাগঞ্জ থেকে শাহাব উদ্দিন রাফেল
এলাকার রেলযাত্রীসহ সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। রাজধানীগামীসহ সকল আন্ত:নগর ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবীতে আজ সকাল ১০ টায়  স্টেশন প্রাঙ্গণে মানব বন্ধন করা হয়  মানব বন্ধনে উপস্থিত ছিলেন  বিভিন্ন  রাজনৈতিক, পেশাজীবী ও ছাত্র সংগঠন।
জানা গেছে, বৃটিশ শাসনামল ও পরবর্তীতে অবিভক্ত বাংলার সময়ও সরাসরি কোলকাতার টিকেট বিক্রি করার মর্যাদাসম্পন্ন এবং ব্যবসা-বাণিজ্যসহ নানা কারণে গাইবান্ধা জেলার সবচাইতে উন্নত উপজেলা গোবিন্দগঞ্জের প্রধান রেলস্টেশন মহিমাগঞ্জের ওপর দিয়ে আপ-ডাউন মিলিয়ে প্রতিদিন আটটি আন্ত:নগরসহ ১৬টি ট্রেন চলাচল করে।
এরমধ্যে লোকাল ও মেইল ট্রেন এবং দিনাজপুর থেকে সান্তাহারের মধ্যে চলাচলকারী আন্ত:নগর দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেনটি ছাড়া বাকী ছয়টি ট্রেনই এখানে যাত্রা বিরতি করে না।
এলাকার রেলযাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, এ রেল রুটের অন্যান্য স্টেশনের চেয়ে অনেক বেশি পরিমাণ রাজস্ব আদায় হলেও অজ্ঞাত কারণে জনগুরুত্বসম্পন্ন এ স্টেশনে রাজধানী ঢাকা ও বুড়িমারী স্থলবন্দরগামী আন্ত:নগর ট্রেনগুলোর যাত্রাবিরতি নেই। রংপুর চিনিকল, বেশ কয়েকটি ব্যাংক, সরকারি ও বেসরকারি অনেকগুলো অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কারণে এখানকার শত শত মানুষকে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতে হয়।
এ জন্যে তাদের বোনারপাড়া, সোনাতলা , বগুড়াসহ বিভিন্ন স্টেশনে গিয়ে ট্রেনে উঠতে হয়। কিন্তু আন্ত:নগর ট্রেনগুলোর যাত্রাবিরতি না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় যাত্রীদের। একইভাবে ঢাকা থেকে এসে ওইসব স্টেশনে ট্রেন থেকে নেমে অতিরিক্ত টাকা খরচ করে সিএনজি অটোরিক্সাসহ বিভিন্ন ছোট ছোট হালকা যানবাহনে চড়ে মহিমাগঞ্জে পৌঁছুতে আরেক দফা ভোগান্তিতে পড়েন ট্রেন যাত্রীরা।
এ কারণে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা ও পাশ^বর্তী সাঘাটা উপজেলার একাংশের রেলযাত্রীসহ একটি বিশাল এলাকার মানুষের চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে।
 গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল লতিফ প্রধান জানান, ‘বর্তমান জনবান্ধব সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বিষয়টির গুরুত্ব বিবেচনা করে অবিলম্বে মহিমাগঞ্জ স্টেশনে সকল আন্ত:নগর ট্রেনের যাত্রাবিরতির জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশা করছি।’
বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ নাজির হোসেন প্রধান ,গোবিন্দগঞ্জ মহিলা কলেজের অধ্যাপক জহুরুল হক ,শিক্ষা অফিসার আহসান হাবিব , গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা খুরশীদ আলম পলাশ অবিলম্বে মহিমাগঞ্জ রেলস্টেশনে সকল আন্ত:নগর ট্রেনের যাত্রাবিরতির ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আহব্বান জানান।

Related Articles

Back to top button
Close