জাতীয়সারাদেশ

যেখানে নিরাপদ সড়ক চাই, সেখানে সচেতন পথচারী চাই

সাজেদুর আবেদিন শান্ত (সাহিত্য সম্পাদক)ঃ এই কান্নার পিছনে দায়ী অদক্ষ চালক, ফিটনেসবীহিন গাড়ী, ঝুঁকিপূর্ণ রাস্তা-ঘাট। ঠিক তেমনি দায়ী অসচেতন পথচারী।
শুধু নিরাপদ সড়ক হলেই যে আমাদের দেশের সড়ক দুর্ঘটনা একটিও ঘটবে না এমনটি ভাবা সনুচিত নয়।
শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে নিরাপদ সড়কের জন্য। আন্দোলনটি যৌক্তিক এবং সময় উপযোগী। কিন্তু সচেতন পথচারী এখন সময়ের দাবী। আমাদের দেশে ট্রাফিক আছে,আইন আছে। কিন্তু আমাদের ট্রাফিক আইন মানার মন- মানুষিকতা নেই।
আমরা পথচারী হিসাবে কতটুকু সচেতন ?
আমাদের সচেতনতার অভাবে আমরা রাস্তা ঘাটে জীবনের ঝুকি নিয়ে পারাপার হচ্ছি। রাস্তার উপরে ফুট ওবার ব্রীজ দিয়ে আমরা চলাচল করছি না কেন ?
আমাদের রাস্তার ওপরে আছে ওভার ব্রিজ। সেটা শুধু রাস্তার সৌন্দর্য্যই বাড়ায়।
যদিও প্রয়োজনের তুলনায় কম তবুও তার সদ্ব্য ব্যবহার হচ্ছে না।
অসচেতন পথচারী দূর্ঘটনার একটি বড় কারণ।
জীবনের ঝুকি নিয়ে রাস্তা পার হই। এছাড়াও আছে রাস্তায় সুন্দর সাদা কালো দাগ কাটা জেব্রা ক্রসিং।সেটাও রাস্তার সৌন্দর্য্য বাড়ায় সঠিক ব্যবহার হয়না। ঢাকার প্রায় ৯৯% দুর্ঘটনা ঘটে রাস্তা পারাপারে।এর দায় কার ট্রাফিক পুলিশের ,সরকারের নাকি আমাদের অসচেতনাতার?
রাস্তার পাশে আছে ময়লা ফেলার ডাষ্টবিন কিন্তু তাতে আমরা কয়জন ময়লা ফেলি?খাবার এর প্যাকেট,কলার খোসা,কোমল পানীয়র বোতল ফেলি রাস্তায়।আমাদের সচেতনতাই পারে নিরাপদ সড়ক তৈরী করতে,সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে।
আসুন সবাই মিলে সচেতন পথচারীর দায়ীত্ব পালন করি।
রাষ্ট্রের দায়িত্ববোধ ও জনগণের সচেতনতা, এই দুইয়ে মিলে নিশ্চিত করতে পারে নিরাপদ সড়ক।

Related Articles

Back to top button
Close