শিবগঞ্জ

শিবগঞ্জে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা, আটক ১

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার অর্জুনপুর গ্রামে
এক নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা,আটক ১।

থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পৌরসভা এলাকার অর্জুনপুর গ্রামের কৃষক দুলুর মেয়েকে একই গ্রামের সায়েদ আলীর পুত্র মমিন(২৪) গত ২৯ জুন সন্ধ্যায় রাস্তায় একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষনের উদ্দেশ্য জড়িয়ে ধরে। এসময় ওই লম্পট মমিন ওই মেয়ের শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এ সময় সে ডাক চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে লম্পট যুবক তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে ঐ দিনেই রাতে মেয়েকে সাথে নিয়ে তার পরিবারের লোকজন মমিনের বাড়িতে গেলে মমিনের বাবাসহ পরিবারের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে দুলুর মেয়েকে মারপিট করে গলায় ওড়না পেচিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।এসময় ওই দুলু ও তার মেয়ে ডাক চিৎকারে স্থানীয় জনসাধারণ এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লে­ক্স ভর্তি করে। উক্ত ঘটনায় দুলুর মেয়ে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা করে। মামলা নং-১। মামলা সূত্রে আরোও জানা যায়, মেয়েটি তার নানার বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার সময় উক্ত ঘটনাটি ঘটে। জানতে চাইলে মামলার বাদী বলেন, মমিনের কারণে আমার জীবন নষ্ট হয়েছে, আমার সংসার ভেঙ্গেছে, আমি তার কঠর শাস্তি দাবী করছি। সরেজমিনে গিয়ে কিছু এলাকাবাসীর সাথে কথা বললে জানা যায়, মমিনের কারণে আজ মেয়েটির এ অবস্থা, ছেলেটি এর আগের অন্য মেয়ের ও সংসার ভেঙ্গেছে। অপরদিকে কিছু এলাকাবাসী বলেন, মেয়েটি খারাপ স্বভাবের এবং ছেলেদের ফাদে ফেলা তার ও তার পরিবারের একটি ব্যবসা। ইতিপূর্বে মেয়েটির ২বার বিবাহ হয়েছিলো কিন্তু খারাপ স্বভাবের কারণে কোথাও ১ মাসের বেশি সংসার টিকেনি। এবিষয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় দুলুর মেয়ে বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার প্রেক্ষিতে একজন আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজুতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আসামীদের বিরুদ্ধে সঠিক আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close