সোনাতলাসোনাতলা'র সংবাদ

শীতের পিঠা বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করছে সোনাতলার ফরিদা বেগম

সংবাদ আজকাল : সোনাতলা বগুড়া থেকে ঃ শিতের পিঠা তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করছে সোনাতলার মনির ভিটায় বসবাসরত আজাহার আলী ফকিরার মেয়ে ফরিদা বেগম। সোনাতলা উপজেলা পরিষদ রোডে মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডের সামনে শিতের পিঠা খাওয়ার জন্য এখন ভীড় করছে পিঠা প্রেমিক সাধারন মানুষ। এদিকে পিঠা বিক্রি করে স¦াবলম্বী হয়ে উঠছে স্বামী পরিত্যাক্ত ফরিদা বেগম । এব্যাপারে ফরিদা বেগম জানান,আমার স্বামী বাস ড্রাইভার আবজাল হোসেন প্রায় আড়াই বছর হল সন্তানসহ আমাকে ফেলে রেখে অন্যত্র চলে গেছে । শুনতে পেরেছি সে আরেকটি বিয়ে করেছে, আমার আরকোন খোঁজ-খবর নেয়না ,আমার দুটি সন্তান বড় মেয়ে সোনাতলার সবুজ সাথী স্কুলে লেখা পড়া করে । ছেলে ছোট মাত্র ৫ বছর বয়স, বাবা,মার সংসারে বোঝা হয়ে না থেকে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য সোনাতলা উপজেলা পল্লী দারিদ্র ফাউন্ডেশন সমিতি থেকে লোন নিয়ে স্থানীয় মাইক্রোষ্ট্যান্ড এ একটি মুদি দোকান দেই কিন্তু তেমন বিক্রি না হওয়ায় আমার মার কথামত পিঠা বিক্রি শুরু করি। মাইক্রোর ড্রাইভাররাসহ এলাকার অনেক লোক এখন আমার পিঠা খেতে ভির জমায়। এতে আমি সংসার ও মেয়ে লেখাপড়ার খরচ চালিয়েও কিছু টাকা জমাতে পারছি।
ফরিদা বেগম প্রতিদিন সকাল ছয়টা থেকে বেলা ১১ ও বিকেল ৩ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত শীতের পিঠা,চিতল পিঠা বানিয়ে বিক্রি করে । এতে সে উপাদান হিসেবে চালের আটা,খেজুরের গুর,নারিকেল,চিতল পিঠা খাওয়ার জন্য সরিষা ভর্তাসহ বিভিন্ন প্রকার লোভনীয় ভর্তা বানিয়ে পসরা সাজিয়ে বসেছে।

Related Articles

Back to top button
Close