সারাদেশ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হতদরিদ্রের চাউল বিতরনে অনিয়মের অভিযোগ

সাজমিন সাথীঃ সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা কেরালকাতা ইউনিয়নের হতদরিদ্র জনগন সরকার কর্তৃক নির্ধারিত মুল্যে খাদ্যশষ্য বিতরনে অনিয়মের অভিযোগ এনে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

সোমবার বেলা ৫ টার দিকে কলারোয়া উপজেলা অডিটোরিয়ামের সামনে এই প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। সে সময় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল উপস্হিত হত দরিদ্রের অভিযোগ মনোযোগ দিয়ে শুনেছেন এবং তদন্ত করে এর ব্যবস্হা নিবেন বলে জানান। তখন সেখানে উপস্হিত ছিলেন, কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ, কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুনির উল গিয়াস, কলারোয়ার ১২ টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এসময় জেলা প্রশাসক মহোদয়কে একটি লিখিত অভিযোগ প্রদান করা হয়।

পরে পর্যায়ক্রমে কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আর এম সেলিম শাহনেওয়াজ, কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মুনির উল গিয়াস, ও কলারোয়া উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রককে অনুরুপ কপি প্রদান করা হয়েছে।
অভিযোগ বলা হয়েছে সরকার হতদরিদ্র জনগনের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে একটি পরিবারের জন্য ৩০ কেজি চাউল প্রদান কর্মসূচীর আওতায় কেরালকাতা ইউনিয়নের ১১৩০ জনের একটি তালিকা করা হয়েছিল এবং সেই তালিকা মোতাবেক আমরা ২ বার চাউল তুলেছিলাম। কিন্তু দূর্ভাগ্য বশতঃনতুন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ নির্বাচিত হওয়ার পর ০৮/৯/২০১৬ তারিখ হতে অদ্যবধি আমাদেরকে আর চাউল প্রদান করা হয়নি।

ডিলার আব্দুল গফফার ও ডিলার আশরাফ এর কাছে চাউল আনতে গেলে বলেন আপনাদের নাম তালিকায় নাই, আপনারা কার্ড জমা দেন। আপনারা আর চাউল পাবেন না। এর পর অতি সম্প্রতি আবার চাউল দেওয়া হবে এ খবর শুনে আমরা কলারোয়া উপজেলা খাদ্য অফিসে খোজ নিয়ে জানতে পারি আমাদের নাম তালিকায় আছে।

খাদ্য অফিস থেকে বলা হয়েছে আপনারা এত দিন চাউল পাননি সেটা খাদ্য অফিস জানেনা, আর এই তালিকা ছাড়া আর কোন তালিকা আমাদের কাছে নাই তবে ১৯/৩/২০১৯ তারিখে ১১৩ জনের নাম সংশোধন করে একটি তালিকা প্রস্তত করা হয়েছে কিন্তু তাদেককে এখনো চাউল দেওয়া হয়নি। সাবেক চেয়ারম্যান স ম মোরশেদ আলী ভিপি ফেল করায়, এবং নৌকা প্রতিকে ভোট দেওয়ার কারনে আমাদেরকে মোরশেদ চেয়ারম্যানের লোক ভেবে আমাদের কার্ড ডিলাররা ইচ্ছা মত পরিবর্তন করে নতুন চেয়ারম্যান আব্দুলহামিদের পছন্দের লোকজন কে চাউল বিতরণ করা হয়েছে।

যার কোন সংশোধিত কপি পর্যন্ত উপজেলা খাদ্য অফিসে পাঠায়নি ডিলাররা। তালিকায় নাম থাকার কারনে আমরা আমাদের বিগত দিনের চাউল সহ এমাসেই প্রদত্ত চাউল যেন পেতে পারি তার দাবি জানাচ্ছি।

Related Articles

Back to top button
Close