সারাদেশ

সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের ছাত্ররা বাস শ্রমিককে মেরে যখম

সাজমিন সাথীঃ  সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের কিছু বকাটে ছাত্রদের সাথে গত ২৬ আগস্ট আশাশুনি টু সাতক্ষীরা বাস ষ্টাফদের সাথে বাকবিতন্ডা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
এতে ঐ বাসের চালক সহ আরো দুই জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়ে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে  ভর্তি হয়। এই ঘটনার জেরে আজ ২৭ আগষ্ট বেলা ১০টা দিকে তাদের গাড়ী সহ সকল স্টাফ একত্রিত হয়ে  এ হামলার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচারের দাবীতে আশাশুনি – সাতক্ষীরার রুটের সকল বাস মালিক এবং শ্রমিকরা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে অবস্হান নেয় ও তাদের বিচার দাবী করে। এতকরে সাতক্ষীরা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ব্যাপক যানজটের দুর্ভোগে পড়ে সাধারন যাত্রী ও পথচারীরা।
 ঘটনার বিবরনে জানা যায় সাতক্ষীরা সদরের নবারুন স্কুলের সামনে   গত ২৬ই আগস্ট বেলা  ৪টার দিকে গাড়ি সাইড দিতে গিয়ে  সাতক্ষীরা সরকারী কলেজের ছাত্রদের সাথে বাকবিতন্ডা  ও মারামারির ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনার জের ধরে ৩৬৭৬নং গাড়িতে যাত্রী সেজে পাচ ছয় জন কলেজ ছাত্র সুপারভাইজারের কাছে সিট চায়, সিট দিতে না পারার এক পর্যায়ে ঐ গাড়ির  সুপারভাইজারকে নবারুন স্কুলের সামনে গাড়ি থেকে নামিয়ে রাস্তার সামনে পড়ে থাকা ইটের টুকরা দিয়ে তার মাথায় এবং গায়ে আঘাত করে। মারাত্বক যখম অবস্হায় স্হানীয় লোকজন মিলে আহত ৩৬৭৬ নং গড়ির সুপারভাইজার  আছাদুর জামানকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।
আছাদ আশাশুনি থানার বুধহাটা গ্রামের হোসেন আলী পুত্র।  শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলার সব  রুটের বাস বা মিনিবাস সব বন্ধ রয়েছে। শ্রমিকদের সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস পেলে তারা আবার রাস্তার ফিরে যাবে বলে জানিয়েছেন এক শ্রমিক নেতা।
এঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close