সোনাতলা'র সংবাদ

সোনাতলায় পরকিয়া প্রেমের টানে দুই সন্তানের জননী প্রেমিকের ঘরে

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ গত সোমবার রাতে সোনাতলার পৌর এলাকার ২নং ওয়ার্ড গড়চৈতন্য পুর গ্রামের একরাম হোসেনর ছেলে সবুজ মিয়ার স্ত্রী দুই সন্তানের জননী তারাবানু (২৮) পরকিয়ার টানে পার্শ্ববর্তী হাসেন মিয়ার বাসার ভারাটিয়া ওয়েল্ডিং মিস্ত্রী মেহেদী হাসানের ঘরে রাত ৩টায় ঢুকে এসময় তার দেবর আপেল মিয়া প্রকৃতির টানে ঘুম থেকে উঠে বাহিরে বের হলে বিষয়টি টের পায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন এসে হাসানের ঘরে তালা লাগায়। পরবর্তীতে স্থানীয় ভাবে বিষয়টি গ্রাম্য শালিসে তারা বানু তার স্বামী সবুজ মিয়াকে তালাক দেয়। স্থানীয় লোকজন তারা বানু ও প্রেমিক মেহেদী হাসান কে পৌর কাউন্সিলরদের হাতে তুলে দেন। এব্যাপারে পৌর কাউন্সিলর তরিকুল ইসলামের সাথে যোগযোগ করা হলে তিনি জানান, কাউন্সিলরদের উপস্থিতিতে তারা বানুকে তার পরিারের কাছে দেয়া হয়। উল্লেখ্য প্রায় ১৪-১৫ বছর আগে গাবতলী উপজেলার তেলিহাটা গ্রামের আব্দুল গফুরের মেয়ে তারা বানুর সাথে গড়চৈতন্যপুর গ্রামের একরাম হোসেন এর ছেলে সবুজ মিয়ার বিবাহ হয়। সংসার চলাকালিন তাদের ঘরে দুটি ছেলে সন্তান জন্ম হয়। মেহেদী হাসান গাইবান্ধা জেলার পিয়ারাপুর গ্রামের ছানোয়ার চৌধুরীর ছেলে।

Related Articles

Back to top button
Close