সোনাতলা'র সংবাদ

সোনাতলায় শ্যালো মেশিনের পানি নেওয়াকে কেন্দ্র করে দাঁত হারালো গৃহবধু

সোনাাতলা বগুড়া প্রতিনিধিঃ সোনাতলার বালুয়াইউনিয়নের দাউদপুর গ্রামের জোর পূর্বক শ্যালো মেশিনের ড্রেন কেটে পানি নেওয়ায় বাঁধা দেওয়ায় দাঁত হারালো শ্যালো মেশিন মালিক আলম ব্যাপারীর স্ত্রী কহিনুর বেগম ।এব্যাপারে সোনাতলা থানায় অভিযোগ দিয়েছে গুরুতর আহত কহিনুর বেগমের স্বামী আলম ব্যাপারী। অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, গত ১মার্চ আলম ব্যাপারীর বসত বাড়ীর সন্নিকটে তার নিজস্ব শ্যালো মেশিন দ্বারা ধানী জমিতে পানি সেচ দেওয়ার সময় একই গ্রামের রজব আলী মন্ডল,জিহাদ মন্ডল,লাকী বেগম জোর পূর্বক শ্যালো মেশিনের পানির ড্রেন ভেঙ্গে ফেলে তাদের পুকুরে পানি নিতে থাকে ।এসময় টের পেয়ে শ্যালো মেশিনের মালিক আলম ব্যাপারীর স্ত্রী কহিনুর বেগম তাদের বাঁধা প্রদান করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উল্লেখিত ব্যাক্তি বর্গ অতর্র্কিতে লোহার রড ও লাঠি সোটা নিয়ে কহিনুর বেগমের উপর আক্রমন করে এবং সজোরে আঘাত করে । জোরালো আঘাতে কহিনুরের মূখে লেগে তার নিচ পাটির ৪টি দাঁত পরে যায় । সে গুরুতর জখম প্রাপ্ত হয়। ঐসময় প্রতিপক্ষের লোকজন কহিনুর কে বিবস্ত্র করে ফেলে এবং তার গলায় রক্ষিত র্স্বনের চেন ছিনিয়ে নেয় বলে অভিযোগ করেছে তার স্বামী আলম ব্যাপারী। বর্তমানে কোহিনুর সোনাতলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এব্যাপারে সোনাতলা থানার এসআই সুশান্তর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অভিযোগ পেয়ে ঘটনার স্থান পরিদর্শন করেছি ,তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close