বগুড়া সোনাতলায় দুই সন্তানের জননী কে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষনঃ থানায় মামলা, প্রেমিক আটক

rafel shahabrafel shahab
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  08:13 PM, 19 March 2021

  • গুড়ার সোনাতলা উপজেলা জোড়গাছা ইউনিয়নের ভেলুর পাড়া গ্রামের আজিমুদ্দিন এর ছেলে আনিসুর রহমানের স্ত্রী সাবিনার সঙ্গে প্রতিবেশী দেবর হাসান মাহমুদ চঞ্চল (২৭) পরকীয়ার সময় গ্রামবাসী হাতে নাতে আটক করে।

স্থানীয় ও থানা সূত্রে জানা যায় আনিসুর রহমান দীর্ঘদিন থেকে ঢাকায় একটি কোম্পানীতে চাকরি করার সুযোগে পাশ্ববর্তী বাবলু প্রামানিক এর ছেলে চঞ্চল কৌশলে ওই গৃহবধুকে ফুসলিয়ে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষন করে। ভুক্তভোগী সাবিনা জানান, চঞ্চল প্রায় বছর খানেক আগে থেকে তার সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলে। প্রায়ই সে তার বাড়িতে যাতায়াত করত। এরই এক পর্যায়ে এলাকাবাসীর চোখে পড়লে এলাকাবাসী ঘরে ঢুকে চঞ্চলকে অনৈতিক অবস্থায় দেখতে পায়, পরে বাইরে এসে ঘর তালাবদ্ধ করে রাখে। সম্পর্কের বিষয়ে সাবিনার কাছে জানতে চাইলে সাবিনা সত্যতা স্বীকার করে বলেন, চঞ্চল এর সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ তিন বছরের সম্পর্ক এর আগেও অনেকবার রাতে বাসায় এসেছিল, অপরদিকে চঞ্চল এই সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে বলেন আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত চলছে এবং আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে। একাধিক স্থানীয় এলাবাসী বলেন আমরা এর আগেও সাবিনা, চঞ্চল এর পরকীয়া সম্পর্কের কথা শুনেছি আজ হাতেনাতে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেল।

এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন পরদিন সকালে সোনাতলা থানা পুলিশে খবর দিলে এসআই ইয়ামিন ফোর্স সহ ১৮ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছেলে মেয়েকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে, এ ব্যাপারে সোনাতলা থানা অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা জানান, সাবিনা ধর্ষন মামলা করায় আসামি চঞ্চলকে কোর্টে প্রেরণ করে সাবিনাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মেডিক্যাল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :